ময়নাতদন্তের আগেই শিশুর দেহ নিয়ে গায়েব পরিবার, হাসপাতালের ভূমিকায় প্রশ্ন

বুনিয়াদপুর: ময়নাতদন্তের আগেই হাসপাতাল থেকে শিশুর দেহ নিয়ে গায়েব হলেন পরিবারের লোকজন। শুক্রবার বংশীহারি ব্লকের রশিদপুর হাসপাতালে ঘটনাটি ঘটেছে। চিকিৎসক ও সিভিক ভলান্টিয়াররা হাসপাতালে থাকার পরও কীভাবে এমন ঘটনা ঘটল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

বড়দিন ও নিউ ইয়ার উপলক্ষ্যে মেলার সূচনা

কালচিনি: করোনা সংক্রমণের জন্য গত দুবছর হ্যামিল্টনগঞ্জের কালীপুজোর মেলার আয়োজন বন্ধ রাখা হয়েছে। তাই কালচিনি ও সংলগ্ন এলাকার চা বাগানের শ্রমিকদের মনোরঞ্জনের জন্য ও আসন্ন বড়দিন ও ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষ্যে কালচিনির বক্সা ফুটবল ময়দানে মেলার আয়োজন করল স্থানীয় বক্সা ক্লাব। শুক্রবার সন্ধ্যায় ফিতে কেটে ও প্রদীপ জ্বালিয়ে মেলার সূচনা করেন তৃণমূলের আলিপুরদুয়ার জেলা চেয়ারম্যান মৃদুল গোস্বামী ও দলের কালচিনি ব্লক সভাপতি পাশাং লামা। আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গিয়েছে, মেলা চলবে ১ জানুয়ারি পর্যন্ত।

খবরের জের, ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মেয়ের জাতিগত শংসাপত্র পেলেন ঊর্মিলাদেবী

বর্ধমান:  মেয়ের জাতিগত শংসাপত্রের জন্য প্রায় এক বছর আগে আবেদন জানানোর পর থেকে প্রশাসনের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছিলেন পূর্ব বর্ধমানে মেমারির রাধাকান্তপুর নিবাসী ঊর্মিলা দাস। উত্তরবঙ্গ সংবাদে এই খবর প্রকাশিত হতেই নড়েচড়ে বসল প্রশাসন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই শংসাপত্র হাতে পেলেন তিনি। স্বাভাবিকভাবেই খুশি পরিবারের সকলেই।

বনবস্তির মহিলাদের স্বাবলম্বী হওয়ার পথ দেখাচ্ছে শালপাতা

রাজগঞ্জ: বনবস্তির মহিলাদের স্বাবলম্বী হওয়ার পথ দেখাচ্ছে জঙ্গলের শালপাতা। রাজগঞ্জ ব্লকের বনবস্তির অনেক মহিলা শালপাতার থালা বানিয়ে পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন। ব্লকের মান্তাদাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের বৈকণ্ঠপুর জঙ্গল ঘেষা ললিতাবাড়ি এলাকার প্রায় ২৫ জন মহিলা জঙ্গল থেকে শালপাতা এনে সেলাই করে বিক্রি করছেন। তাঁদের মতো মেনঘড়া, সিমলাডাঙ্গি, পানাশগুড়ি সহ বিভিন্ন বনবস্তির মহিলারা শালপাতার থালা সেলাই করে স্বাবলম্বী হওয়ার চেষ্টা করছেন।

সিভিয়ার আন্ডার ওয়েট শিশুদের পুষ্টি পুনর্বাসনে পাঠানো হল

বুনিয়াদপুর: বংশীহারি সুসংহত শিশু বিকাশ সেবা প্রকল্পের অধীন ১১ জন সিভিয়ার আন্ডার ওয়েট বাচ্চাদের পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানো হল। বংশীহারি ব্লকের ২১৫টি আইসিডিএস কেন্দ্রের মহিলারা বাচ্চাদের নিয়ে কাজ করে চলেছেন যারা দীর্ঘদিন অপুষ্টিতে ভুগছেন। ছয় মাস থেকে পাঁচ বছর বাচ্চাদের মধ্যে বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ৩২ জন বাচ্চাকে নির্ধারণ করা হয়। শুক্রবার বংশীহারি সুসংহত শিশু বিকাশ সেবা প্রকল্পের অফিসে তাদের নিয়ে একটি ক্যাম্প করা হয়। পুষ্টি পুনর্বাসন কেন্দ্রের প্রতিনিধি, সিডিপিও ও সুপারভাইজার এদিন উপস্থিত ছিলেন।