মন্দির-মসজিদের আশ্চর্য সহাবস্থান, সম্প্রীতির দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে অযোধ্যা

সোমনাথ রায়, অযোধ‌্যা: সুপ্রিম কোর্টে অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার পর ঠিক কেমন হবে উত্তরপ্রদেশের এই শহরের ছবিটা? এই প্রশ্নই ঘুরপাক খেতে শুরু করেছিল। কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল, অযোধ্যা রয়েছে অযোধ্যাই। যুগের পর যুগ ধরে যেভাবে জাতি-ধর্ম-বর্ণ ভুলে মিলেমিশে থেকেছে এখানকার বাসিন্দারা, সে ছবির এতটুকু হেলদোল হয়নি। বরং প্রত্যেকে সাদরে স্বাগত জানিয়েছেন সুপ্রিম রায়কে। জাত-পাতের ঊর্ধ্বে গিয়ে হাতে হাত মিলিয়ে এগিয়ে চলাতেই বিশ্বাসী তাঁরা। ঘুরতে ঘুরতে এমন এক জায়গায় এসে পৌঁছলাম, সেখানে এ বিশ্বাস আরও অটুট হল।

জয়েন্টে ব্রাত্য বাংলা ভাষা, প্রতিবাদ সভায় বিজেপিকে আক্রমণ অভিষেকের

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দলনেত্রী আগেই সরব হয়েছেন। এবার তাঁরই পদাঙ্ক অনুসরণ করে জয়েন্টে আঞ্চলিক ভাষা হিসেবে বাংলার অন্তর্ভুক্তির দাবিতে ধরনায় বসলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বাংলা ভাষায় জয়েন্টের প্রশ্নপত্র নয় কেন, আঞ্চলিক ভাষা হিসেবে কেনই বা শুধু গুজরাটি ভাষা স্থান পেয়েছে, এই প্রশ্নও তোলেন তিনি। 

‘বাংলার সরকারি স্কুলে পড়ে জয়েন্ট দেওয়া যায়?’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপের

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোতত্ত্বের পর ফের মুখ খুলে বিতর্কে জড়ালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তৃণমূলের বিরোধিতা করে তিনি বলেন, ‘বাংলার সরকারি স্কুলে পড়ে জয়েন্ট দেওয়া যায় নাকি?’ আর বিজেপি রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্যকে নিয়ে চলছে জোর সমালোচনা। কীভাবে একজন বাংলার নেতা ভাষা নিয়ে একথা বলতে পারেন সে প্রশ্নও মাথাচাড়া দিতে শুরু করেছে।

বিনা নোটিসে ঝটিকা সফরে সিঙ্গুরে রাজ্যপাল, অসন্তুষ্ট তৃণমূল

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতীর সমাবর্তনের অনুষ্ঠান সেরে ফেরার পথে সিঙ্গুরে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। সিঙ্গুরে বিডিও অফিসে যান তিনি। সূত্রের খবর, কাউকে কিছু না জানিয়ে প্রায় বিনা নোটিসেই ব্লক ডেভেলপমেন্ট অফিসে যান রাজ্যপাল। তার ফলে প্রশাসনিক কর্তাব্যক্তিদের সঙ্গে দেখা হয়নি তাঁর। তবে স্থানীয়দের সঙ্গে কথাবার্তা বলেন রাজ্যপাল। আচমকা ধনকড়ের সিঙ্গুর সফরকে ভাল চোখে দেখছে না তৃণমূল। এর বিরোধিতায় সুর চড়িয়েছেন দলীয় নেতারা।

বাবা জেলে, চাটার্ড বিমানে জন্মদিন সেলিব্রেট করে কটাক্ষের শিকার তেজস্বী যাদব

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাবা জেলে ভাত খাচ্ছেন, আর ছেলে কেক কেটে জন্মদিন পালনে মত্ত। লালুপুত্রের এমন কাণ্ড দেখে ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা। ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন সবাই। কিন্তু তাতে কী আর আসে যায়! লালুপুত্র তেজস্বী মেতে আপন খেয়ালে। মেতে সাড়ম্বরে নিজের জন্মদিন পালনে।