দিলীপ ঘোষের রোড শোয়ে ধুন্ধুমার, বিজেপির মিছিলে ইটবৃষ্টি, পালটা ভাঙচুর তৃণমূল কার্যালয়ে

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) মিছিলে ফের হামলা। মঙ্গলবার সন্ধের ঘটনা ঘিরে ধুন্ধুমার বর্ধমানের (Burdwan) রসিকপুর মোড়। অভিযোগ, বিজেপির মিছিল লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি চলে। তৃণমূলের কার্যালয়ে পালটা ভাঙচুর চালানো হয় বলে অভিযোগ। এ নিয়ে বিজেপি-তৃণমূলের মধ্যে ধুন্ধুমার বেধে যায়। পরিস্থিতি সামলাতে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ, কেন্দ্রীয় বাহিনী। 
মঙ্গলবার বর্ধমান দক্ষিণের বিজেপি প্রার্থী সন্দীপ নন্দীর সমর্থনে বিজেপি (BJP) রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের রোড শো চলছিল পাওয়ার হাউস পাড়া থেকে পার্কাস মোড় পর্যন্ত। সন্ধে নাগাদ রসিকপুর মোড়ের কাছে মিছিল এলে ইটবৃষ্টি শুরু হয় বলে বিজেপির অভিযোগ। দিলীপ ঘোষকে তৃণমূলের সদস্যরা কালো পতাকা দেখান। ঘটনাস্থলের পাশেই রয়েছে তৃণমূল কার্যালয়। সেখানে পালটা ব্যাপক ভাঙচুর করা হয় বলে অভিযোগ তৃণমূলের (TMC)।  ইটবৃষ্টির মধ্যে দু’পক্ষের সংঘর্ষ বাধে। উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন জখম হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।বিজেপির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল রায় জখম হয়েছেন। 
[আরও পড়ুন: ‘ভয়ংকর খেলা হবে’ মন্তব্যের জের, এবার অনুব্রত মণ্ডলকে শোকজ করল কমিশন]
ঘটনার সূত্রপাত, তৃণমূলের একটি ফেস্টুন ছেঁড়া নিয়ে। অভিযোগ, দিলীপ ঘোষের রোড শোয়ের পথে তৃণমূলের একটি ফেস্টুন ছিল। তা ছিঁড়ে দেওয়া হয়। এর প্রতিবাদ করে স্থানীয় তৃণমূল সমর্থকরা। দু’পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এরপরই তৃণমূলের তরফে পালটা ইট ছোড়া হয়। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল নেতা আবদুল রবের নেতৃত্বে হামলা হয়েছে। হামলার ঘটনা অস্বীকার করেছে দু’পক্ষই। ঘটনার প্রতিবাদে রসিকপুরে রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন তৃণমূল কর্মী, সমর্থকরা। পরিস্থিতি ক্রমশই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। তৃণমূলের বিক্ষোভের জেরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে রসিকপুর মোড়। পরিস্থিতি সামলাতে মোতায়েন করা হয়েছে প্রচুর পুলিশ।

[আরও পড়ুন: সোনারপুরে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীরা, বেধড়ক মারধরের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে